LOGo  


২৪ ঘন্টা আপনার পাশে, আপনার সাথে ডেইলি নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডটকম

dailynarayanganj24@gmail.com

 

 

না’গঞ্জে মন্ত্রীত্বের আক্ষেপ ঘুঁচালো গাজী

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ দীর্ঘ এক যুগ পর নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের নবনির্বাচিত

এমপি গোলাম দস্তগীর গাজীকে (বীর প্রতিক) দিয়ে মন্ত্রীত্বেও আক্ষেপ ঘুঁচলো নারায়ণগঞ্জবাসীর। স্বাধীনতার পর এই প্রথম আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে কাউকে পূর্ণমন্ত্রী করা হলো।

৬ জানুয়ারি দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ হতে ফোন পান গোলাম দস্তগীর গাজী। পরে বিকেলে মন্ত্রী পরিষদ সচিব মো.শফিউল আলম সংবাদ সম্মেলনে জানান, গোলাম দস্তগীর গাজী বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেবেন। সোমবার (৭ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৩টায় বঙ্গভবনে ৪৬ সদস্য বিশিষ্ট নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠান হবে।

এদিকে গোলাম দস্তগীর গাজী মন্ত্রীসভায় সুযোগ পাওয়ায় আনন্দে ভাসছে পুরো নারায়ণগঞ্জ। জানা গেছে, রূপগঞ্জসহ জেলায় এখন এমন সংবাদে আনন্দের জোয়ার বইছে। স্বাধীনতার ৪৭ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে নারায়ণগঞ্জ থেকে কাউকে পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রী করা হলো।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে (নাসিক) মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী পদাধিকার বলে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা দেয়া হয়। কিন্তু আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে একজন মন্ত্রীর অপূর্ণতার আক্ষেপে ভুগছিলো নারায়ণগঞ্জবাসী। গোলাম দস্তগীর গাজীকে মন্ত্রী করায় সেসব আক্ষেপ ঘুঁচলো নারায়ণগঞ্জবাসীর।  

সর্বশেষ ১৭ বছর আগে ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে দুইজনকে মন্ত্রী করে বিএনপি। তখনো এই রূপগঞ্জ থেকেই মতিন চৌধুরীকে প্রথমে বস্ত্রমন্ত্রী পরে দফতরবিহীন মন্ত্রী করা হয়। ২০০৬ সাল পর্যন্ত তার সুবাদে মন্ত্রীত্বের স্বাদ পেয়েছিলো নারায়ণগঞ্জবাসী।

এছাড়া সোনারগাঁয়ের এমপি অধ্যাপক রেজাউল করিমকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী করা হয়। ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে নারায়ণগঞ্জ জেলা মন্ত্রী শূণ্য থাকে। ১৯৯১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী করা হয় রূপগঞ্জের এমপি ও দলের তৎকালিন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মতিন চৌধুরীকে।

জাতীয় পার্টি স্বর্ণযুগেও নারায়ণগঞ্জ জেলা থেকে মন্ত্রী করা হয়েছিলো। সেসময় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি এমএ ছাত্তারকে প্রথমে শ্রম ও জনশক্তি মন্ত্রী পরে পাটমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হয়। ওনসময়ে সোনারগাঁয়ের ব্যারিস্টার রাবেয়া ভুইয়াকে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী করা হয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর নতুন মন্ত্রীপরিষদে স্থান পাওয়া গোলাম দস্তগীর গাজী ক্লিন ইমেজের ব্যক্তি হিসেবে সর্বমহলে পরিচিত। সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে তিনি নিরঙ্কুশ জয় পান। নির্বাচনে তিনি ভোট পেয়েছেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ৭৩৯ ।

আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ধানের শীষ প্রতীকে কাজী মনিরুজ্জামান মনির পান মাত্র ১৬ হাজার ৪৩৪ ভোট। দশম ও নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের হেভীওয়েট প্রার্থী হিসেবেই নির্বাচনে জয় পান গোলাম দস্তগীর গাজী। মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়ায় আওয়ামীলীগ সরকারের আমলে জেলা থেকে প্রথম মন্ত্রী হওয়ার ইতিহাস গড়লেন তিনি। গোলাম দস্তগীর গাজীকে মন্ত্রীসভায় স্থান দেয়ায় আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন  নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ।

সংবাদ শিরোনাম