LOGo  


২৪ ঘন্টা আপনার পাশে, আপনার সাথে ডেইলি নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডটকম

dailynarayanganj24@gmail.com

 

 

পৃথক ঘটনায় ২ নারীর লাশ উদ্ধার

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ ফতুল্লায় পৃথক দুটি স্থান থেকে দুই

তরুনীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুর পুলিশ ভোলাইল এলাকার একটি পরিত্যাক্ত বাড়ির ভিতর থেকে অজ্ঞাত তরুনী (২২) ও ঢালীপাড়া এলাকার মাসুদ মিয়ার ভাড়াটিয়া বাড়ির একটি কক্ষের মেঝে থেকে কুলসুম আক্তার (২৫) নামে অপর এক তরুনীর লাশ উদ্ধার করে।

নিহত কুলসুম ভোলা জেলার লালমোহন থানার রমাগঞ্জ গ্রামের মৃত. নুরুন নবীর মেয়ে। তিনি স্বামী মামুনের সঙ্গে ওই এলাকায় ভাড়া থাকতেন ও একটি গামের্ন্টে চাকুরি করতেন। তাদের ঘরে মাসুম নামে ৬ বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পুলিশ উদ্ধারকৃত লাশ দুটির ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল  হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

ফতুল্লা মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে এলাকাবাসীর সংবাদের ভিত্তিতে উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল হক ভোলাইল থেকে ওই অজ্ঞাত তরুনীর লাশ উদ্ধার উদ্ধার করেন। নিহতের পড়নে হলুদ শেলোয়ার ও সাদা প্রিন্টের কামিজ ছিল। প্রাথমিকভাবে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল হক জানান, ধারণা করা হচ্ছে, ধর্ষণের পর কেউ এই তরুনীকে হত্যা করে নির্জন স্থানে লাশ ফেলে রেখে গেছে। নিহতের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

অপরদিকে, উপ-পরিদর্শক (এসআই) উত্তম ঢালীপাড়া এলাকা থেকে কুলসুম আক্তারের লাশ উদ্ধার করেন। নিহত কুলসুমের গলায় দাগ রয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার স্বামী মামুন পলাতক রয়েছে।

ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম মঞ্জুর কাদের লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুটি ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে। লাশ দুটির ময়না তদন্তের পর মৃত্যুর কারন জানা যাবে।

তিনি আরো জানান, কুলসুমের স্বামী মামুনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। লাশ দুটি উদ্ধারের ঘটনায় আইনী ব্যবস্থাও পক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদ শিরোনাম