LOGo  


২৪ ঘন্টা আপনার পাশে, আপনার সাথে ডেইলি নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডটকম

dailynarayanganj24@gmail.com

 

 
Previous ◁ | ▷ Next
 
2018-12-12-14-10-13ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়নগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ ও আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী শামীম ওসমান বলেছেন,  বিএনপি যাকে নির্বাচন করতে দিয়েছে তার উদ্দেশ্য নির্বাচন না করা। গত পরশুদিনও ৫০ জন লোক ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জে এসে ডুকেছিল। খেতা বালিশ সব বানানো হয়েছিল। শোনা যায় এরা নাকি শিবিরের জঙ্গী।...
     
আমি কেরানী হিসেবে আপনাদের হয়ে কাজ করবো-আকরাম ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক...
 
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জ -২ ( আড়াইহাজার ) আসনে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী...
     
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ দেশের একটি বড় অংশ তরুণ ভোটার, তাদের প্রথম ভোট ইসলাম দেশ...
 
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্ র প্রার্থী সাবেক এমপি কায়সার হাসনাত...
 
নগর-মহানগর
 
     
 
ফতুল্লা
 
     
 
বন্দর
 
     
 
সিদ্ধিরগঞ্জ
 
     
 
সোনারগাও
 
     
 
রূপগঞ্জ
 
     
 
আড়াইহাজার
 
     
 
 
 
 
সর্বশেষ ২৪ শিরোনাম
 
 
বিশেষ সংবাদ
 
বিজ্ঞাপন
 
সাক্ষাতকার
 
বিজ্ঞাপন
 
খেলা
 
বিজ্ঞাপন
 
বিনোদন
 
বিজ্ঞাপন
দূভোর্গ
 
আলোচিত সংবাদ
 
 
 
 
 
 

না’গঞ্জে দলের প্রার্থী নিয়ে সংশয় তৃণমূলে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে

সামনে রেখে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি সহ সব দল গুলোর আসন ভিত্তিক একাধিক প্রার্থী হওয়ায় দলগত কোন্দলের আশংকা বেড়ে চলেছে। প্রায় প্রতিটি আসনে একাধিক প্রার্থীদের সমর্থনের বিষয় শীর্ষ স্থান দখল করা বিএনপি শেষ সময় কার হাতে ভোটের লড়াইয়ের জান্ডা তুলে দিবেন তা নিয়ে স্থানীয় তৃনমূলে রয়েছে নানা সংশয়। এদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে নির্বাচন হলেও সকল প্রার্থীর প্রতিক থাকছে ধানেরশীষ। ঐক্যফ্রন্টের আওতাভুক্ত দলগুলোও বিএনপির পাশাপাশি একই আসনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন নির্বাচনে অংশগ্রহন করার জন্য। যদিও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে বলা হয়েছে দল থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে চুড়ান্ত করবো আমরা। সেই দিক বিভেচনা করলে দেশের বৃহত্তম বিএনপির অনেক প্রার্থীর কপাল এবার নির্বাচনে পুড়তে পারে। তবে সেটা প্রত্যাহারের মাধ্যমে বুঝা যাবে কে কে ঐক্যফ্রন্ট থেকে পাচ্ছেন আর কারা বাদ পরছেন বিএনপির কান্ডারী হওয়ার পরেও।

এবিষয় বিএনপির নেতাকর্মীরা বলেন, আমরা জেল জুলুম সহ্য করে দেশের গণতন্ত্র উদ্ধারের জন্য রাজপথে ছিলাম এখনও আছি এবং আগামীতেও থাকবো। কিন্তু দলের বাহিরে অন্য দলের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা আমাদের জন্য সহজ বিষয় হবে না। বিএনপি থেকে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দরা একাধিক প্রার্থী দিয়েছেন সেটা মানা যায়। দলের যে প্রার্থীকে শেষ বেলায় সমর্থন দিবে আমরা তার পক্ষে হয়ে কাজ করবো। কিন্তু অন্য দলের প্রার্থীরা আমাদের দলীয় প্রতিক ব্যবহার করে কোন যোগ্যতা ছাড়াই ধানের শীষকে ব্যবহার করে এমপি হওয়ার স্বপ্ন দেখবে সেটা মেনে নেয়া যায় না। এতে করে দলের মধ্যে কোন্দল বৃদ্ধি পাবে কিঞ্চিত পরিমান কমবে না। আমরা চাই যারা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আর্দশের দল বিএনপির পতাকা তলে রাজনীতি করেছে তাদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হউক। অন্য কোন দলের প্রার্থীদের নয়।

এদিকে, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যজোট এবার নির্বাচনে অংশগ্রহনের পুর্বেই ঘোষনা দিয়েছেন আন্দোলনের অংশ হিসেবে তারা নির্বাচনে যাচ্ছেন। যার ফলসূতিতে এবারের নির্বাচন বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জন্য আন্দোলন মোখী হিসেবে দেখছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। গণতন্ত্র উদ্ধার ও বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিকে সামনে রেখে দলের অস্থিত্ব রক্ষায় এবার নির্বাচনী মাঠে থাকার ঘোষনা দিয়েছে বিএনপি। তবে দলের প্রার্থীদের বঞ্চিত করে অন্য দলের প্রার্থীদের সমর্থন দিলে নির্বাচনী মাঠে বিএনপি’র তৃণমূল কিভাবে নিবে বা কতটুকু কাজ করবে তা নিয়ে আশংকার দাগ থাকছে অনেকটাই।

অপরদিকে, বর্তমান ক্ষমতাশীন দল আওয়ামীলীগ প্রায় প্রতিটি আসনে একক প্রার্থী ঘোষনা দিলেও সেখানে ভাগ বসাতে স্বতন্ত্র হিসেবে দলের অন্য প্রার্থীরাও মনোনয়ন জমা দিয়েছে বেশ ঢাক ডোল বাজাঁনোর মত পরিবেশে। এর ফলে নির্বাচনী মাঠে একই দলের একাধিক প্রার্থী ভোটের লড়াইয়ে অংশগ্রহন করলে সেটা বিরোধীদের জন্য জয়ের রাস্তা অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে উঠে।

তবে সব প্রশ্নে জবাব পেতে অপেক্ষা করতে হবে প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহারের দিন পর্যন্ত। তখনই বিষয়টি পরিষ্কার হবে আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও অন্যান্য দলের চুড়ান্ত প্রার্থী কারা হচ্ছেন।