LOGo  


২৪ ঘন্টা আপনার পাশে, আপনার সাথে ডেইলি নারায়ণগঞ্জ ২৪ ডটকম

dailynarayanganj24@gmail.com

 

 
Previous ◁ | ▷ Next
 
2018-12-10-14-37-21ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জে ৫টি আসনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীদের মাঝে জোটগত ও দলীয় প্রতীক বরাদ্ধ দিলেন জেলা নির্বাচন কমিশনের দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা রাব্বী মিয়া। সোমবার সকাল ১১টা থেকে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়। এসময় রিটার্নিং...
     
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিন নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনে বিএনপি...
 
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে মহাজোট মনোনীত প্রার্থী...
     
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ দলীয় প্রতীক পাওয়ার পর প্রতিক্রিয়ায় মনির হোসেন কাসেমী  বলেন, ফেয়ার নির্বাচন...
 
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সিংহ প্রতীক পেয়েছেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী-স্বতন্ত্র...
 
নগর-মহানগর
 
     
 
ফতুল্লা
 
     
 
বন্দর
 
     
 
সিদ্ধিরগঞ্জ
 
     
 
সোনারগাও
 
     
 
রূপগঞ্জ
 
     
 
আড়াইহাজার
 
     
 
 
 
 
সর্বশেষ ২৪ শিরোনাম
 
 
বিশেষ সংবাদ
 
বিজ্ঞাপন
 
সাক্ষাতকার
 
বিজ্ঞাপন
 
খেলা
 
বিজ্ঞাপন
 
বিনোদন
 
বিজ্ঞাপন
দূভোর্গ
 
আলোচিত সংবাদ
 
 
 
 
 
 

যারা প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন তারাই আমার নির্বাচন করবে : সেলিম ওসমান

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজের

প্রার্থী হওয়া নিয়ে এমপি সেলিম ওসমান ওসমান বলেছেন, আগামী নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে প্রার্থী হিসেবে ৮/১০ জনের নাম শোনা যাচ্ছে। যারাই নির্বাচনে নিজেদেরকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন দেখা যাবে তারা আমার নির্বাচনই করবেন। কারণ নির্বাচনে এই আসন থেকে কে প্রার্থী হবেন সে সিদ্ধান্ত দিবেন একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর উনার ডিক্লেয়ারেশন নিয়েই আমি নির্বাচনে মাঠে নামবো।

বৃহস্পতিবার ৪ অক্টোবর দুপুরে বন্দর উপজেলা পরিষদের নবনির্মিত অডিটরিয়াম ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন এমপি সেলিম ওসমান।

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে বন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম.এ রশিদ, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ফয়সাল সাগর, হান্নান সরকার, ও সুলতান আহম্মেদ, বন্দর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মাহমুদা মায়া, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান, বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন, মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন, ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ, মদনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম এ সালাম তাদের বক্তব্যে সরকারের পাশাপাশি এমপি সেলিম ওসমানের ব্যক্তিগত অর্থায়নে বন্দরের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে আগামী সংসদ নির্বাচনে আবারো এমপি সেলিম ওসমানকে ভোট দিয়ে এমপি নির্বাচিত করতে সকলের প্রতি অনুরোধ রাখেন।

সেলিম ওসমান আরো বলেন, আসলে আজকে এটা কোন নির্বাচনী সভা নয়। আর আবারো যদি কাউকে নির্বাচিত করার কথা বলতে হয়। তাহলে আমি বলবো বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বানাতে হবে। তাহলে আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি আগামী ২৫ বছরে বাংলাদেশ যে উন্নত হবে তা অন্য কোন উন্নত দেশ চিন্তাও করতে পারবে না।

বন্দরের উন্নয়ন সম্পর্কে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে বন্দরে সকল এলাকার রাস্তাঘাট গ্রামীন অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা হয়েছে। সামনে ১০ কোটি, ২০ কোটি এবং ৫০ কোটি টাকার পৃথক ৩টি প্রকল্প আসবে। সামনে আরো উন্নয়ন হবে। সকল উন্নয়ন শেষ করতে চাই এখন এটাই আমার একমাত্র কাজ। তবে দু:খের বিষয় প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে স্টেডিয়াম নির্মানের প্রকল্প নিয়েছে। কিন্তু আমরা বন্দরে এতো জায়গা থাকতে এখনো স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য একটা জায়গা কেউ বের করে দিতে পারলেন না। আমি বন্দর উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের অনুরোধ করবো আগামী ১৫ দিনের মধ্যে স্টেডিয়ামের জন্য জায়গা খুঁজে বের করে দিবেন। কোন অবস্থায় যেন বন্দরের মানুষ বর্তমান সরকারের উন্নয়ন সুবিধা থেকে বঞ্চিত না হয়।

বিগত দিনে বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে নিজের উপর হওয়া অত্যাচারের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে আমার কারখানা দখল করে ভাঙচুর লুটপাট করা হয়। আমার বাসায় গুলি করা হয়েছে। বন্দরে আমার একটা জমি ছিল। ওই জমিতে দেখা গেছে একজন এমপি সাহেবের নামে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছিল। অথচ উনি এ বিষয়ে কিছুই জানতেন না। উনি জানার পর উনার ছেলেকে দিয়ে সাইনবোর্ডে উঠিয়ে ফেলেন এবং যারা এমন কাজটি করে ছিলেন তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করে ছিলেন। তাই আমি বলবো বন্দরে উন্নয়ন নিয়ে কোন রাজনীতি নয়। আমি যেখানে যাই সব মঞ্চে সকল দলের নেতারা উপস্থিত থাকেন। এটাই আমার সব থেকে বড় পাওয়া। রাজনীতি হবে মাঠে ময়দান আর উন্নয়ন হবে একত্রে।

বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) পিন্টু বেপারীর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনা(ভূমি) শাহীনা শবনম, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শাহীন মন্ডল, মহানগর জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব আকরাম আলী শাহীন সহ অন্যান্যরা।